কুমিল্লার দাউদকান্দি থানার এক মক্তবে পবিত্র কুরআনের চরম অবমাননা করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভে ফুসছে সেখানকার ধর্মপ্রাণ জনতা।
বুধবার (১৫ মার্চ) দাউদকান্দির ১নং সুন্দুলপুর মডেল ইউনিয়নের ভাগলপুর গ্রামের আব্দুল হাকিম ফরিদুন্নেছা মাইজভান্ডারী ফোরকানিয়া মক্তবের ভেতর এ কাহিনী ঘটে। মক্তব্যটির পাশেই রয়েছে বেশ কয়েকটি হিন্দু বাড়ি। জনতার ধারণা তাদেরই কাজ হতে পারে এটি।
জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে ওই মক্তবে ঢুকে পবিএ কুরআনের কপিগুলো সারিবদ্ধভাবে বিছিয়ে উপরে নাপাকি রেখে যায় দুর্বৃত্তরা। সকালে মক্তবে এসে এলাকার মানুষ সেটা দেখার পর উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। প্রকৃত অপরাধীদের গ্রেফতারের জন্য তারা থানায় অভিযোগ জানায়।
kumilla_maktab2
তবে পুলিশ বা এলাকার জনগণ বুধবার বিকাল পর্যন্ত কোন অপরাধী সনাক্ত করতে পারেনি।
এ বিষয়ে দাউদকান্দি থানার ওসি মিজানুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আওয়ার ইসলামকে জানান, এরকম একটি তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে, আমরা তদন্ত করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেব।
ঘটনাটি কারা ঘটিয়েছে এমন প্রশ্নে ওসি বলেন, আমরা তদন্ত না করে কিছুই বলতে পারব না।
ওই ইউনিয়নের স্থানীয় জনগণের সাথে কথা বললে তারা এই অপরাধের সাথে জরিতদের সনাক্ত করে জনতার সম্মুখে শাস্তি দেওয়ার দাবি জানান।
উৎসঃ ourislam24