ছেলের কাঁধে বাবার প্রাণহীন দেহ কতটা ভারী?—এই প্রশ্নের মর্ম এখন জানেন বলিউড তারকা অজয় দেবগন। তারকা ছেলের কাঁধে বাবার মরদেহ দেখল মুম্বাই। গতকাল সোমবার চলচ্চিত্রের বর্ষীয়ান অ্যাকশন কোরিওগ্রাফার, প্রযোজক ও পরিচালক ভীরু দেবগনের দাহ সম্পন্ন হয়।
ভীরু দেবগন বলিউড তারকা কাজলের শ্বশুর। গতকাল শেষবেলায় ভীরু দেবগনের শেষযাত্রায় ভেঙে পড়লেন তিনি। ঐশ্বরিয়া রাইকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন তিনি।


গতকাল ভীরু দেবগনের মৃত্যুতে বলিউডের অনেক তারকা দেবগন পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন। বিকেলে শেষযাত্রায় ভীরু দেবগনকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত, অনিল কাপুর, বনি কাপুর, অর্জুন কাপুর, মহেশ ভাট, শাহরুখ খান, সানি দেওল, ববি দেওল, রীতেশ দেশমুখ, সাজিদ খানসহ বলিউডের অনেক তারকা শিল্পী। স্বামী অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে যান ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন।


পুরোনো ছবিতে ভীরু দেবগনের সঙ্গে কাজল
চলচ্চিত্রের বর্ষীয়ান অ্যাকশন কোরিওগ্রাফার, প্রযোজক ও পরিচালক ভীরু দেবগন গতকাল সকালে মুম্বাইয়ের মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর। ভীরু দেবগন বেশ কয়েক দিন ধরেই বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় ভুগছিলেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ার তাঁকে মুম্বাইয়ের সান্তা ক্রুজের সূর্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।


ভীরু দেবগনকে শেষ বিদায় জানাতে এসেছেন শাহরুখ খান
দেড় শতাধিক ছবিতে অ্যাকশন কোরিওগ্রাফি করেছেন ভীরু দেবগন। \’হিন্দুস্তান কি কসম\’ (১৯৯৯) নামে একটি ছবি পরিচালনা করেন। এই ছবির প্রযোজক তিনি। ছেলে অজয় দেবগন ছাড়া এই ছবিতে আরও অভিনয় করেন অমিতাভ বচ্চন, মনীষা কৈরালা ও সুস্মিতা সেন। প্রযোজক হিসেবে বলিউডে তিনটি ছবি করেছেন। \’হিন্দুস্তান কি কসম\’ ছাড়া অন্য দুটি ছবি হলো \’দিল কেয়া করে\’ ও \’সিংহাসন\’। এ ছাড়া তিনি \’ক্রান্তি\’ (১৯৮১), \’সৌরভ\’ (১৯৮৯) ও \’সিংহাসন\’ (১৯৮৬) ছবিতে অভিনয় করেছেন। ১৯৯২ সালে মুক্তি পাওয়া \’জিগার\’ ছবির ভাবনা ছিল তাঁর। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী বীণাসহ চার সন্তান অজয়, অনিল, নীলম ও কবিতাকে রেখে গেছেন।

বাবার মরদেহ দিয়ে শেষযাত্রায় অজয় দেবগন, অজয়দের বাড়িতে ঢুকছেন ঐশ্বরিয়া ও অভিষেক বচ্চন