বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় চলচিত্র অভিনেতা অনন্ত জলিল। তর পুরো নাম এম. আব্দুল জলিল। ২০১০ খোঁজ-দ্যা সার্চ সিনামের মধ্যে দিয়ে ঢাকাই সিনেমায় পর্দাপন করেন এই অভিনেতা। শুরুতে তাকে নিয়ে আলোচনা সমালোচনা হয়েছে অনেক। তার অভিনয় শৈলিতে একটু ত্রুটি থাকার কারনে সারাদেশ ব্যাপি তিনি ব্যপক সমালোচিত হন। তবে তিনি তার দানসীল মনোভাব নিয়ে মানুষের প্রসংশাও কুড়িয়েছেন অনেক। নায়ক ছাড়াও ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি অত্যন্ত সফল একজন মানুষ। নিয়মিত কর প্রদানের জন্য তিনি সরকারের কাছ থেকে সি আই পি খেতাবও পেয়েছেন।
তার স্ত্রী চিত্রনায়িকা বর্ষা।ভালোবেসে ঘর বেঁধেছেন আলোচিত তারকা দম্পতি চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল ও চিত্রনায়িকা বর্ষা। দেখতে দেখতে তাদের বিবাহিত জীবনের ৮ বছর পূর্ণ হয়ে গেল। দুই ছেলে নিয়ে কাটছে তাদের সুখের সংসার। অষ্টম বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করতে বর্তমানে ইতালির রোমে অবস্থান করছেন অনন্ত জলিল ও বর্ষা। সঙ্গে রয়েছে তাদের সন্তানরাও ।

স্ত্রী, সন্তানদের সঙ্গে ইতালির বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়িয়েছেন অনন্ত জলিল। সেখান থেকে বিশেষ দিনটিতে নিজেদের জন্য দোয়া চেয়েছেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রোমের কলোসিয়ামের সামনে তোলা বেশকিছু ছবি শেয়ার করেছেন ’খোঁজ দ্য সার্চ’ খ্যাত এই নায়ক । একটি ছবিতে একে অপরকে ফুল দিয়ে বিবাহবার্ষীকির শুভেচ্ছা জানাতে দেখা গেছে। অপর ছবিতে তাদের সঙ্গে দুই ছেলেকেও দেখা যায়।

এদিকে, অনন্ত জলিল ও বর্ষা সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে অনন্ত লেখেন, ’আলহামদুল্লিলাহ, আমাদের বিবাহিত জীবনের ৮ বছর পূর্ণ হলো। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। অনন্ত জলিল ও বর্ষা।’

http://www.ppbd.news/assets/news_photos/2019/09/24/image-124593-1569314283.jpg

প্রসঙ্গত, এম এ জলিল অনন্তর পূর্ব পরিচয় হলো, তিনি একজন গার্মেন্টস ব্যবসায়ী। তিনি গার্মেন্টস ব্যবসার পাশাপাশি চলচ্চিত্র ব্যবসায় বিনিয়োগ করেন, নিজের প্রযোজনা সংস্থার মাধ্যমে। নতুনত্ব ও বৈচিত্র্য আনার জন্য রূপালীপর্দায় ঝুঁকেছেন অনন্ত জলিল।অনন্ত জলিল সামাজিক কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে ৩টি এতিমখানা নির্মাণ করেছেন। মিরপুর ১০ নং , বাইতুল আমান হাউজিং ও সাভার মধুমতি মডেল টাউনে আছে এতিমখানাগুলো। এ ছাড়াও সাভারের হেমায়েতপুরের ধল্লা গ্রামে সাড়ে ২৮ বিঘার উপর একটি বৃদ্ধাশ্রম নির্মাণের কাজ শুরু করেছেন অনন্ত জলিল। তিনি ঢাকার হেমায়েতপুরে অবস্থিত বায়তুস শাহ জামে মসজিদ এর নির্মাণকাজেও অবদান রাখেন।