২৭ দিন কারাগারে ছিলেন পরিমনি। আর সেই সময়টা সব থেকে বেশি প্রয়োজন ছিল তার প্রিয় সব মানুষদের। কিন্তু একটা সময়ে যারা সব সময়ই তার সাথে মিশেষ থাকতো এই দুঃসময়ে তারাই ছিলেন না তার পাশে। আর তাই তো জেল থেকে বেড়িয়ে তাদের নিয়ে কথা বললেন তিনি। জীবনের কঠিনতম সময় পার করার সময়ে তিনি চিনেছেন তার আশপাশে থাকা মানুষগুলোকে। আজ কারাগার থেকে বের হয়েই এক বার্তায় তোলপাড় করে দিয়েছেন নায়িকা। তার হাতে মেহেদিতে লেখা ছিল, ’ডোন্ট লাভ মি বিচ’।
পরী জানালেন, যারা তার সুসময়ে পাশে ছিল, কিন্তু দুঃসময়ে অচেনা হয়ে গিয়েছে, তাদের উদ্দেশ্যেই তিনি সেই বার্তা দিয়েছেন। পরীর ভাষ্য, ’যারা দুমুখো সাপ, তাদের বলেছি ডোন্ট লাভ মি বিচ।’

পরীমণি গণমাধ্যমকে বলেন, ’অবশ্যই আমি তাদেরকে চিনে ফেলেছি। তাদের অন্তরে ভালোবাসা নেই। তারা মুখে মুখে বলে- লাভ ইউ। তাদের বলেছি, ভালোবাসা দরকার নেই। তারা যেদিন বিপদে পড়বে, বুঝবে। যাদের নিয়ে গলায় গলায় থাকা, একপ্লেটে খাওয়া কই তারা? আমি চলে এসেছি। তারা এখন আবার ওয়েলকাম বলছে। আমি চিনেছি কারা শত্রু, কারা মিত্র।’

কারাগারে থাকার সময়ের বিষয়ে পরীমণি বলেন, ’মনে হচ্ছে দুঃস্বপ্ন থেকে বের হলাম। আমার এই খারাপ স্বপ্নের মেয়াদ ছিল ২৭ দিন! এটা দীর্ঘ খারাপ স্বপ্ন। দুঃস্বপ্ন ভেবেই এটা রাখতে চাই। আমি কোনোভাবে ভেঙে যেতে চাই না।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় পরীমণিকে নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল। এই বিষয়ে পরীমণি বলেন, ’যারা ব্যক্তিগতভাবে আমাকে চেনে না, তাদের গালি আমার গায়ে লাগবে না। রাস্তার কেউ আমাকে অপদস্ত করলে আমি অপদস্ত হয়ে যাব না। কিন্তু যারা আমাকে চিনেও গালি দিয়েছে তাদের গালি গায়ে লেগেছে।’

প্রসঙ্গত, গত মাসের ৪ তারিখে তার বাড়িতে চালানো হয় অভিযান। আর সেই অভিযানের পরেই গ্রেফতার করা হয় তাকে। এরপর রিমান্ড তারপর কারাবাসে থাকেন তিনি। শেষ পর্যন্ত গতকাল জামিনে মুক্তি পান তিনি।