গতকাল ছিল বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক সৈয়দ আশরাফের দ্বিতীয় মৃ’/ত্যু’/ বার্ষিকী। এক সময়ে তিনি ছিলেন দলের সব থেকে বড় এ্যাসেট। আর এ কথা জানিয়েছিলেন খোদ প্রধানমন্ত্রীই। কিন্তু সেই মানুষটিকেই গতকাল স্মরন করেনি বাংলাদেশ আওয়ামিলীগের কেউ। আর এ সব নিয়ে শুরু হয়েছে নতুন আলোচনা সমালোচনা। এ নিয়ে এবার একটি লেখনি লিখেছেন শওগাত আলী সাগর। পাঠকদের উদ্দেশ্যে তার সেই লেখনি তুলে ধরা হলো হুবহু:-
সৈয়দ আশরাফের মৃ’/ত্যু’/ বার্ষিকীতে আওয়ামী লীগ কিংবা দলের কেন্দ্রীয় নেতারা কেন তার প্রতি শ্রদ্ধা জানালো না, কেন কবরে কেউ একজন ফুল দিল না-এটি নিয়ে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাদের বেদনা প্রকাশ করছেন। সুস্থ রাজনীতি এবং আদর্শবান রাজনীতিকদের প্রতি শ্রদ্ধার কারণেই তারা এটি করছেন-এ ব্যাপারে কোনো সংশয় নেই। কিন্তু আওয়ামী লীগের বর্তমান রাজনীতির ধারা (পালস) যারা বুঝেন-তাদের কাছে এটি অস্বাভাবিক কিছু নয়।

আওয়ামী রাজনীতির বাস্কেটে নানা ফুলের শোভার জায়গা নেই। এই বাস্কেটে কেবল একটি বৃক্ষ, সেই বৃক্ষের লতা পাতা, ফুল ছাল বাকলের বাইরে আর কোনো কিছুরই জায়গা নেই। যারা সৈয়দ আশরাফের জন্য বেদনা বোধ করছেন-তারা যে এটি জানেন না-তা কিন্তু নয়। তবু সৈয়দ আশরাফের মতো একজন ভালো মানুষের প্রতি দলের মুখ ফিরিয়ে নেয়াটা তাদের স্পর্শ করেছে দেখে ভালো লাগলো।

এ দিকে সৈয়দ আশরাফকে নিয়ে হওয়া এ সব সমালোচনার কোন ধরনের জবাব এখনো পাওয়া যায়নি বাংলাদেশ আওয়ামীলিগ থেকে। গতকাল তাকে শ্রদ্ধা না জানানো নিয়ে কোন ধরনের মন্তব্য এখনো শোনা যায়নি।