স্যোশাল মিডিয়া মানেই এখন বুদ হয়ে থাকা। সকলেই এই স্যোশাল মিডিয়া নিয়েই মেতে থাকেন এখন। নিজের ঘর থেকে শুরু করে পরের বিষয় সব কিছুই এখন স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়ে থাকে। তাই এবার অনুমতি ছাড়া ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জারি করা পত্র ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার না করতে প্রাথমিকের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগ। ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় উপ-পরিচালক ইফতেখার হোসেন ভুঁইয়া রবিবার (২০ ডিসেম্বর) নির্দেশনাটি জারি করেন।
নির্দেশনায় বলা হয়, \’সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয় ও ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জারি করা বিভিন্ন পত্র যেমন আদেশ/নোটিশ/পরিপত্র কতিপয় কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ফেসবুক না সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করছেন। এতে অনেক কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক হয়রানি বা হেয় প্রতিপন্ন হচ্ছেন। প্রাথমিক শিক্ষার প্রশাসনিক জটিলতা সৃষ্টি হচ্ছে। বিষয়টি দুঃখজনক, অনভিপ্রেত ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী।\’

?w=800&ssl=1

এতে আরও বলা হয়, \’এমতাবস্থায় বিভিন্ন জেলার আওতাধীন উপজেলা/থানার কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের জারিকৃত বিভিন্ন আদেশ, নোটিশ বা পরিপত্র কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া ফেসবুকে প্রকাশ না করার জন্য অনুরোধ করা হলো। যদি কোনও কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষক উক্ত কার্যক্রমে জড়িত থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জনা অনুরোধ করা হলো।\’

এ দিকে এই বিষয়টি প্রকাশ হবার পর থেকেই দেখা দিয়েছে নতুন এক আলোচনা। অনেকেই বিষয়টিকে দেখছেন ইতিবাচক ভাবে আবার অনেকেই এটাকে ধরছেন নেতিবাচক ভাবে। তবে এই নির্দেশনা যে মানতেই হবে এতে কোন ধরনের সন্দেহ নয়।