বেশ কিছু দিন ধরে রাজনিতীর মাঠে নতুন করে আবারো সক্রিয় হতে শুরু করেছে বাংলাদেশের অন্যতম বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি। আর এই লক্ষ্যে তারা দেশ ব্যাপি শুরু করেছে নানা ধরনের সভা সমাবেশের আয়োজন। কিন্তু একটা সময় তারা পাচ্ছিল না অনুমতি। তবে শর্ত সাপেক্ষে সেই অনুমতি পেলেও বিএনপির পূর্ব ঘোষিত আজ মঙ্গলবারের সমাবেশ স্থগিত করা হয়েছে। সারাদেশে নিরপেক্ষ নির্বাচন, নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অযোগ্যতা ও ব্যর্থতার প্রতিবাদ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে এ সমাবেশ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পুলিশি অনুমতি না পাওয়ায় এবং বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক কমিটির অন্যতম সদস্য প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন অসুস্থ হওয়ায় এ কর্মসূচি স্থগিত করা হয়।
গতকাল সোমবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় সরকারের নির্বাচনগুলোতে নির্বাচন কমিশন চরম অব্যবস্থাপনা, অনিয়ম ও অদক্ষতা দেখিয়েছে। সরকারের নগ্ন হস্তক্ষেপে নির্বাচন একেবারে অর্থহীন হয়ে পড়েছে। এসবের প্রতিবাদে মঙ্গলবার ঢাকা দক্ষিণে সমাবেশ করার কথা ছিল। তিনি জানান, দুঃখজনক হলেও সত্য, সেই সমাবেশে পুলিশ বাধা দিচ্ছে। একই সঙ্গে ডিএসসিসির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেনও অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তার জ্বর অনেক বেড়ে গেছে, শরীর খুব অসুস্থ।

সে জন্য আমরা এই সমাবেশ স্থগিত ঘোষণা করছি।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি পাঁচটি বিভাগীয় শহরে বিএনপি ছয়টি সমাবেশ কর্মসূচি ঘোষণা করে। এরই মধ্যে বরিশাল, রাজশাহী, খুলনা ও সর্বশেষ ঢাকা উত্তরে চারটি সমাবেশ হয়েছে। আগামী ২০ মার্চ চট্টগ্রামে সমাবেশ হওয়ার কথা রয়েছে। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির উদ্যোগে সমাবেশের জন্য নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব মাঠ ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান- এই তিনটি স্থানের অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানের পরিপ্রেক্ষিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সমাবেশ না করতে বলা হয়েছে।

অনুষ্ঠিত চারটি সমাবেশে মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে বরিশালের মজিবর রহমান সারোয়ার, খুলনার নজরুল ইসলাম মঞ্জু, রাজশাহীতে মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, চট্টগ্রামে শাহাদাত হোসেন, ঢাকা উত্তরে তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণে ইশরাক হোসেন অংশ নেন।

তেজগাঁও কলেজ ছাত্রদলের বিক্ষোভ :তেজগাঁও কলেজ ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী টিটুসহ সব রাজবন্দির মুক্তির দাবিতে রাজধানীর ফার্মগেট এলাকায় মিছিল করেছে সংগঠনটির নেতাকর্মীরা। আহ্বায়ক প্রার্থী সোহেল রানা এবং সদস্য সচিব প্রার্থী বেলাল হোসেন খানের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অংশ নেন তেজগাঁও কলেজ ছাত্রদলের সহসভাপতি সালাউদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ শতাধিক নেতাকর্মী।

এ দিকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তি পালনের লক্ষ্যেও এবার মাঠে নেমেছে বিএনপি। সারা বছর ব্যপি তারা দিয়েছে নানা ধরনের সব কর্মসুচী। এ ছাড়াও তার আরো বড় বড় সব সমাবেশের ডাক আসছে বলে জানা গেছে।