ইসরাইলের ঘটনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আবারো বেশ ক্ষুব্ধতা প্রকাশ করেছেন। বিশেষ করে এই ঘটনা নিয়ে বড় বড় সব দেশ এবং মানবাধিকার সংস্থা গুলো কেন চুপ তা নিয়ে তিনি তুলেছেন প্রশ্ন। ইসরাইলি হ’/ত্যা’/য’/জ্ঞ’/ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ইসরাইল একের পর এক হ’/ত্যা’/য’/জ্ঞ’/ চালাছে। এর আগেও হ’/ত্যা’/য’/জ্ঞ’/ চালিয়েছে, আমরা এই হ’/ত্যা’/য’/জ্ঞ’/র তীব্র নিন্দা জানাই। যারা মা’/রা গেছে তাদের ’/আ’/ত্মা’/র মাগফিরাত কামনা করি।
বুধবার জাতীয় সংসদে বেগম মনিরা সুলতানের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠকে প্রশ্নোত্তর পর্ব টেবিলে উত্থাপিত হয়।

এদিন জাতীয় সংসদে প্রয়াত সংসদ সদস্য আবদুল মতিন খসরু ও আসলামুল হকসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের নামে শোক প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইসরাইলি হ’/ত্যা’/য’/জ্ঞ’/ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনের ঘটনা সত্যি খুব অমানবিক। ছোট্ট শিশুদের কা’/ন্না, তাদের সেই অসহায়ত্ব, মাতৃ ও পিতৃহারা হয়ে ঘুরে বেড়ানো এটা সহ্য করা যায় না।

শোক প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা অনেক সময় মানবতার এত কথা বলেন কিন্তু এই সময় তারা চুপ থাকেন কেন? আন্তর্জাতিক সংস্থা এখন আর কথা বলে না কেন? সেটাই আমার প্রশ্ন। যাই হোক আমরা ফিলিস্তিনি ভাইদের সঙ্গে সবসময় আছি। আমারা সাধ্যমতো সব রকম সহযোগিতা অতীতেও করেছি, করে যাচ্ছি। অবশ্যই করে যাব।

এ দিকে ফিলিস্তিনিদের সাহায্য করার জন্য ইতিমধ্যে নানা ধরনের সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে পাঠানো হয়েছে ওষুধ সহ নানা ধরনের জিনিস। সেই সাথে তাদের পাশে বাংলাদেশ আছে বলেও দেয়া হয়েছে বিবৃতি।