মহামারী করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের তাণ্ডবে ফের মহামারী আকারে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। আর সেহেতু অতি শীঘ্রই এ ভাইরাসের সংক্রমন রুখতে দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় আগামী ১ সপ্তাহের কড়া ’লকডাউন’ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। কিন্তু এরপরও সংক্রমনের হার ধীরে ধীরে বেড়ে যাওয়ায় দেশে চলমান বিধিনিষেধ আরও ১০ দিন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন দিয়েছে সরকার। ফলে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত বাড়ল এ বিধিনিষেধ।
রোববার (০৬ মে) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ দশ দিন বাড়িয়ে নতুন এ প্রজ্ঞাপন জারি করে। এতে পূর্বের সব বিধিনিষেধ বহাল থাকবে বলেও জানানো হয়। এ সময় সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে ব্যাংক।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন থেকে এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, করোনার বিস্তার রোধকল্পে সরকার কর্তৃক বিধিনিষেধের মধ্যে সীমিত পরিসরে ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে আগামী ১৬ জুন পর্যন্ত সীমিত পর্যায়ে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হবে।


এ সময় দৈনিক ব্যাংকিং লেনদেন হবে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত। লেনদেন-পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম সম্পাদনের জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংক শাখা এবং প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগ বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে।

এবং প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে বৃহস্পতিবার, রোববার ও মঙ্গলবার। সিটি করপোরেশনের এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে।


প্রসঙ্গত, বিশ্বের অন্যান্য দেশের পাশাপাশি গত বছরের ৮ মার্চ বাংলাদেশেও প্র‍থমবারের মতো করোনা সংক্রমন ধরা পড়ে। এরপর ধীরে ধীরে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা একে একে বাড়তে থাকায় গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিস্থান, অফিস-আদাকত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সাময়িক বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় প্রশাসন।